1. multicare.net@gmail.com : আমাদের পিরোজপুর ২৪ :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১১:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সোমবার দুর্গত এলাকার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল বাংলাদেশের উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করেছে মুন্সীগঞ্জের কৃতি সন্তান নৌ পুলিশের ডিআইজি ইরান পেলেন উন্নয়নে বাংলা অ্যাওয়ার্ড মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগরে এক রাতেই ৯টি কবরের কঙ্কাল চুরির অভিযোগ পানি সমস্যা সমাধানে বিত্তহীনদের পাশে সমাজসেবী তাপস পিরোজপুরে ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে নিম্নাঞ্চল ও চরাঞ্চল প্লাবিত, ৫৬১টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রোববার রাতে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় রেমাল ঘূর্ণিঝড় রেমালের ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে পায়রা ও মোংলা সমুদ্রবন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ফুলপুরে ভিজিএফ কর্মসূচি কার্ড বিতরণ উদ্বোধন প্রাইম ব্যাংক জাতীয় স্কুল ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে কাউখালীর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়

উজিরপুরে ভেঙ্গে ফেলা হলো সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মান্নান মৃধার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান

  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৫ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৮৯ বার পড়া হয়েছে

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার হরতা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মৃূধার নদীসংলগ্ন সরকারি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে ভেঙ্গে ফেলা হলো বহুতাল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) সকাল দশটায় এ অভিযান পরিচালনা করেন উজিরপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কে এম ইসমাম।এ সময় উপস্থিত ছিলেন উজিপুর মডেল থানার এস আই তরুণ কুমার হালদার, এ এস আই আল মামুন,ও এ,এস,আই ইমদাদ। উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার জালাল উদ্দিন আহমেদ জানান, উপজেলার হারতা ইউনিয়নের ১৩ নং মৌজার ১ নং খতিয়ানের ১১৩২ নং দাগের নদীর জমি অবৈধ ভরাট করে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান একটি বহুতল ভবন নির্মাণ করেন।বিষয়টি স্থানীয়দের অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি নোটিশ প্রদান করলেও ক্ষমতার দাপটে স্থাপনার নির্মাণ করেন।বিষয়টি স্থানীয়রা জেলা প্রশাসকের কাছে অভিযোগ করলে জেলা প্রশাসক দীর্ঘ তদন্ত সাপেক্ষে গত ৯ জুলাই স্থাপনা উচ্ছেদের চূড়ান্ত নোটিশ প্রদান করেন।একই সাথে সাত দিনের মধ্যে তাদের স্থাপনা নিজ উদ্যোগ উচ্ছেদের নির্দেশ প্রদান করা হয়ে ছিল।এ বিষয়ে সাবেক চেয়ারম্যান কোন পদক্ষেপ না নিলে, জেলা প্রশাসক উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কেএম ইসমামকে ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে নিয়োগ প্রদান করা হয়।তারই প্রেক্ষিতে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ বিষয়ে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মৃধা সাংবাদিকদের কে বলেন, ১১৩২ নং দাগের ৪ শতাং জমি আমি রেকর্ডীয় মালিকদের কাছ থেকে ক্রয় করি।উচ্ছেদ অভিযানের বিষয়ে সহকারী কমিশনার ভূমি কে, এম, ইসমাম বলেন সরকারি সম্পত্তি অবৈধ দখলদারের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে।সে যত বড় প্রভাবশালী হোক না কেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।পরবর্তীতে কেউ সরকারি জমি দখল করা ভবন নির্মাণ করলে তার বিরুদ্ধে ফৌজদারী মামলা সহ আর্থিক জরিমানা করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓