1. multicare.net@gmail.com : আমাদের পিরোজপুর ২৪ :
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০১:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নাজিরপুরে ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে ২টি ব্রীজের লোহার মালামাল বিক্রির অভিযোগ ছাগলকাণ্ড : মতিউর রহমান হারাচ্ছেন সোনালী ব্যাংকের পরিচালকের পদ পিরোজপুরে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে আওয়ামীলীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত কাউখালীতে আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের শ্রদ্ধা উজিরপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত গজারিয়ায় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ বরগুনায় সেতু ভেঙে মাইক্রোবাস খালে: কনে পক্ষের ১০ জন নিহত গলাচিপায় দেখা মিলল রাসেলস ভাইপার, আতঙ্কে উপজেলাবাসী মুন্সীগঞ্জে রাসেলস ভাইপার আতঙ্ক দূর করতে মাঠে ‘স্মার্ট ব্রিগেড’ মুন্সীগঞ্জে সিরাজদিখানে বাস- সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত

গলাচিপায় শ্মশান দিপাবলী উৎসব পালিত

  • প্রকাশিত: রবিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৪৩ বার পড়া হয়েছে

পটুয়াখালীর গলাচিপায় হারানো স্বজনদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে পালিত হয়েছে শ্মশান দিপাবলী উৎসব।শনিবার (১১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার পৌর শহরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কুটিয়াল পট্টি কেন্দ্রীয় শ্মশান ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডে শাহাবাড়ি শ্মশানে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে এ উৎসব পালন করেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা।এ সময় শ্মশানের সামনে বাহারী খাবারের পসরা সাজিয়ে প্রার্থনা করেন স্বজনরা।প্রিয়জনের আত্মার শান্তি কামনায় ঢাকের বাদ্য, ধর্মীয় গান ও পূজা অর্চনায় মেতে ওঠেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা।প্রতি বছর চুতর্থদশীর পূণ্যতিথিতে শ্মশানে সমবেত হন সনাতন ধর্মে বিশ্বাসী হাজারো নারী-পুরুষ। এর আগে, সকাল থেকে শ্মশানগুলো ধুয়ে মুছে পরিচ্ছন্ন করা হয়।গলাচিপা সরকারি কলেজ রোড শাহা পাড়া এলাকার শ্মশানে আসা পঙ্কজ গাঙ্গুলী বলেন, আমার পরিবারের যারা মারা গেছেন তাদের স্মরণ করতে এখানে এসেছি। আমার পরিবারের সবাই এসেছেন।মোতবাতি প্রজ্জ্বলন করেছি।মারা যাওয়া স্বজনরা যাতে স্বর্গবাসী হয় সেজন্য বিশেষ প্রার্থনা করেছি। সদর রোড এলাকার কালু বণিক বলেন, আমার বাবা কয়েক বছর আগে মারা গেছেন। বাবার স্মরণে কেন্দ্রীয় শ্মশানে আমরা পরিবারের সবাই এসেছি। বাবার আত্মার শান্তি কামনায় শ্মশানে মোতবাতি প্রজ্জ্বলনসহ ফুল দিয়ে বিশেষ প্রার্থনা করেছি। গলাচিপা কেন্দ্রীয় শ্মশান কমিটি ও কালিবাড়ী কমিটির সভাপতি দিলীপ বণিক বলেন, গলাচিপায় এই শ্মশানটিই সবচেয়ে বড়।এখানে এই এলাকার অনেককেই সমাহিত করা হয়েছে।সকাল থেকেই সনাতন ধর্মাবলম্বী মানুষরা এখানে এসে শ্মশানগুলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করেন। সন্ধ্যায় হাজারো নারী-পুরুষ তাদের স্বজনদের স্মরণে বিশেষ প্রার্থনাসহ পূজা অর্চনা করেন।উপজেলা পূজা উৎযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও গলাচিপা প্রেস ক্লাবের সভাপতি সমিত কুমার দত্ত মলয় বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও শান্তিপূর্ণভাবে পৌর শহরের শ্মশান দুটিতে দিপাবলী উৎসব পালিত হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন গলাচিপা পূজা উৎযাপন পরিষদ গলাচিপা পৌর শাখার সভাপতি কমল সরকার, সাধারণ সম্পাদক গোপাল দেবনাথ, প্রচার সম্পাদক ও সাংবাদিক সঞ্জিব দাস প্রমুখ। এ বিষয়ে গলাচিপা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শোনিত কুমার গায়েণ বলেন, দুটি শ্মশানে সকল ধরণের নাশকতা এড়াতে গলাচিপা থানা পুলিশ কাজ করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓