1. multicare.net@gmail.com : আমাদের পিরোজপুর ২৪ :
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০১:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নাজিরপুরে ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে ২টি ব্রীজের লোহার মালামাল বিক্রির অভিযোগ ছাগলকাণ্ড : মতিউর রহমান হারাচ্ছেন সোনালী ব্যাংকের পরিচালকের পদ পিরোজপুরে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে আওয়ামীলীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত কাউখালীতে আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের শ্রদ্ধা উজিরপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত গজারিয়ায় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ বরগুনায় সেতু ভেঙে মাইক্রোবাস খালে: কনে পক্ষের ১০ জন নিহত গলাচিপায় দেখা মিলল রাসেলস ভাইপার, আতঙ্কে উপজেলাবাসী মুন্সীগঞ্জে রাসেলস ভাইপার আতঙ্ক দূর করতে মাঠে ‘স্মার্ট ব্রিগেড’ মুন্সীগঞ্জে সিরাজদিখানে বাস- সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত

উজিরপুরে মসজিদের কমিটি ও ইমাম দ্বন্দ্বে ,ফ্যান, মাইক ও আইপিএস খুলে নিলো প্রতিপক্ষরা

  • প্রকাশিত: শনিবার, ১৮ মে, ২০২৪
  • ১৩ বার পড়া হয়েছে

উজিরপুর (বরিশাল) প্রতিনিধিঃ

বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার বামরাইল ইউনিয়নের কাজীরা গ্রামের মোল্লা বাড়ি জামে মসজিদের কমিটি ও ইমাম নিয়ে দ্বন্দ্বে মসজিদের ফ্যান, মাইক ও আইপিএস খুলে নিয়ে যায় প্রতিপক্ষরা।এ ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে।স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মসজিদের কমিটি নিয়ে দন্ধে ইমাম মাওলানা আব্দুল হাইকে মসজিদের সভাপতি চাকরি থেকে অব্যাহতি দিলে ইমামপন্থী মুসল্লীরা মসজিদের ফ্যান, মাইক ও আইপিএস খুলে পরিত্যক্ত একটি মসজিদে স্থাপন করেন।স্থানীয় যুবক মেহেদী হাসান ইমরান জানান ১৭ মে শুক্রবার জুমার নামাজের পূর্বে খলিল মীরের পুত্র খসরু ওরফে বাবু মীর, ইয়াসিন সরদারের পুত্র ইয়ামিন সরদার, খোরশেদ শেখের পুত্র সাইফুল শেখ সহ কয়েকজন মিলে মসজিদের ফ্যান, মাইক ও আইপিএস খুলে নিয়ে পার্শ্ববর্তী পরিত্যক্ত পুরাতন মসজিদ ভবনে স্থাপন করেন।এ বিষয়ে অভিযুক্ত বাবু মিরা বলেন, মসজিদের ইমাম সাহেবকে কমিটির সভাপতি মুসল্লীদের কাউকে না জানিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে চাকরি থেকে বাদ দেন এবং এলাকাবাসীদের সাথে দাম্ভিকতা দেখান যার ফলে মুসল্লিদের টাকায় ক্রয় কৃত ফ্যান, মাইক ও আইপিএস খুলে পুরাতন মসজিদ ভবনে স্থাপন করেছি।এ বিষয়ে মসজিদ কমিটির সভাপতি মাহবুব উদ্দিন মোল্লা সাংবাদিকদের কে জানান, মসজিদের ইমাম সাহেব কোরআন হাদিসের বাহিরে গিয়ে ঝাড়ফুক ও তাবিজ কবজের মাধ্যমে নারী পুরুষের অপ চিকিৎসা দিয়ে থাকেন যার ফলে পর্দা খেলাপ হয়।বিষয়টি বারবার নিষেধ করা সত্ত্বেও তিনি শুনেন নাই, তাই তাকে অব্যবহি দেওয়া হয়েছে।তার এই ঝাড়ফুঁকের অপচিকিৎসা ব্যবসা চালু রাখার উদ্দেশ্যে স্থানীয় লোকজনদেরকে ক্ষেপিয়ে মসজিদকে ভাগা ভাগীর চেষ্টা করেন।স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন ডাকুয়া বলেন, ওই জামে মসজিদটি বর্তমান কমিটি নিয়ে বিরোধ চলছে, একই সাথে ইমাম সাহেব কে বহিষ্কার করার ইস্যু নিয়ে এই জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে।আশা করি আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি সমাধান হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓