1. multicare.net@gmail.com : আমাদের পিরোজপুর ২৪ :
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভেড়ামারায় অবাধ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের আশাবাদ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল আলম চুনু’র উজিরপুরে দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির আয়োজনে বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়ায় ট্রাক চাপায় পরিবার পরিকল্পনা সহকারীর মৃত্যু অনুমোদনহীন পাঁচটি ড্রিংকস কোম্পানির মালিকদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা বিদায় অনুষ্ঠানে বিদায়ী পুলিশ কর্মকর্তার  আবেগঘন স্ট্যাটাস শেষ মূহুর্তে জমে উঠেছে কাউখালী উপজেলার নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা উজিরপুরে বিশ্বনবী (সাঃ)কে কটুক্তি করায় গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন পবিপ্রবিতে বিশ্বকবির ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন রাজাপুরে গুজব ছড়িয়ে বিভ্রান্তির চেষ্টা ও বিএনপি দুই নেতার বিরুদ্ধে চেয়ারম্যান প্রার্থীকে সমর্থনের অভিযোগ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র আমাদের রাজপথে মোকাবেলা করতে হবে… যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ

রাজাপুরে মাঠে ফেলে পাঁচ শিক্ষার্থীকে বেধড়ক মারপিটের অভিযোগ শিক্ষকের বিরুদ্ধে

  • প্রকাশিত: সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১৪০ বার পড়া হয়েছে

ঝালকাঠির রাজাপুরে প্রশ্নের উত্তোর লিখতে না পাড়ায় ও ক্লাসরুমে খেলা করার অযুহাত দিয়ে পঞ্চম শ্রেণির পাঁচজন শিশু শিক্ষার্থীকে স্কুল মাঠে ফেলে মধ্যযুগীয় কায়দায় অমানুষিক নির্যাতন ও বেত দিয়ে পিটিয়েছে স্কুলের সহকারি শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন সোহাগ। রোববার ৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর আড়াইটায় উপজেলার সাতুরিয়া ইউনিয়নের ৯নং লেবুবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। স্কুলের সহকারি শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন সোহাগের এ অমানুষিক কর্মকান্ডে অভিভাবকদের মধ্যে চরম ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ঘটনায় আহত শিক্ষাথীর্রা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন এবং তাদের মধ্যে দুই শিক্ষার্থী মারধরের শিকার হয়ে জ¦রে আক্রান্ত এবং অপর শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করায় ক্লাসে উপস্থিতি কমে গেছে। আহত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের অভিযোগ, ওই স্কুলের সহকারি শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন সোহাগ ব্লাকবোর্ডে দুটি প্রশ্ন লিখে তার উল্টর লিখতে বলে অন্য রুমে চলে যায়। কিছুক্ষণ পরে এসে শিশু শিক্ষার্থীদের লিখতে না পাড়া এবং ক্লাসে বসে দুষ্টমী করার অযুহাতে ক্ষিপ্ত হয়ে ৫ শ্রেণির শিক্ষার্থী মুরসালিন, আবু সালেহ, সিয়াম, নাজমুল, শাকিবকে প্রথমে চড় থাপ্পর ও পরে বেত এনে মধ্যযুগীয় কায়দায় মারধর করতে করতে মাঠে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে কোমলমতি ৫ শিক্ষার্থীকে মাঠে ফেলে বেধরক মারধর করে অসুস্থ করে ফেলে। এ সময় অপর দুই ছাত্রী আয়শা ও সামিয়াকে মারধরের ভয় দেখালে এক শিক্ষার্থী অজ্ঞান হয়ে পরে। এসময় স্কুলের অপর শিক্ষার্থীরা ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে কান্নাকাটি শুরু করলে বিদ্যালয়ের অন্য দুই শিক্ষক এসে অভিযুক্ত শিক্ষকের হাত থেকে বেত টেনে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর ৫ম শ্রেণির ৩৯ শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৪ শিক্ষার্থী ছাড়া অন্যরা ভয়ে স্কুলে আসেনি বলেও অভিযোগ অভিভাবকদের। অভিয্ক্তু শিক্ষকের বিচার ও আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দাবি করে অভিভাবক সহ বিদ্যালয়ের অন্য শিক্ষক ও কমিটির সদস্যরা। এ ব্যাপারে শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন সোহাগ বলেন, ক্লাসে বসে প্রশ্নের উত্তর না লিখে কলম নিয়ে খেলায় এবং বেয়াদবি করায় শিক্ষার্থীদের শাস্তি হিসেবে চড় থাপ্পার ও কয়েকটি বেত্রাঘাত করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা পড়ালেখা না করা ও ক্লাসে দুষ্টমী করায় শাসন না করা হয়েছে। বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান বলেন, শিক্ষার্থীদের মারধরের বিষয়টি শিক্ষা অফিসার ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতিকে জানানো হয়েছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের সাথে শিক্ষকের এ ধরনের আচরন দুঃখজনক। ঘটনার পর থেকে অভিভাবকরা শিক্ষার্থীদের স্কুলে পাঠাতে ভয় পাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের উপস্থিতও কমে গেছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এ.কে.এম নুরুল আলম মৃধা জানান, বিষয়টি দুঃখজনক। সাতুরিয়া ইউনিয়নের দায়িত্বে থাকা সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তাকে সরেজমিনে গিয়ে বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বলা হযেছে। প্রতিবেদন পেলে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিতপূবর্ক অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এর আগেও অভিযুক্ত এ শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের মারধর ও উগ্র আচরনের অভিযোগ রযেছে। তার বিরুদ্ধে জরুরি ভিত্তিতে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার দাবি জানিয়েছেন অভিভাবক ও এলাকাবাসী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓