1. multicare.net@gmail.com : আমাদের পিরোজপুর ২৪ :
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০১:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পিরোজপুরে বিনা অভিবাসন ব্যয়ে চাকরি সুযোগ পাওয়া শতাধিক নারীকর্মীর অবহিতকরন কর্মশালা অনুষ্ঠিত বরিশাল বিভাগের ১৪ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহন  তারাকান্দায় ইয়াবাসহ মাদক কারবারি আটক গজারিয়া উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানদের দায়িত্ব গ্রহণ পবিপ্রবিয়ানদের ঈদ ভাবনা গজারিয়ায় ১২কি:মি অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ১২ টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন মামলা প্রক্রিয়াধীন বিশ্বকাপ উন্মাদনায় মেতেছে পবিপ্রবি শিক্ষার্থীরাও ফুলপুর ভূমি অফিস দুর্নীতি ও দালাল মুক্ত রাখার ঘোষণা ইউএনওর তারাকান্দায় বিভিন্ন মামলার ৬ আসামি গ্রেফতার বায়জিদ মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত

১৯কোটি টাকার সেতুতে উঠতে হয় বাশেঁর চাটা বেয়ে

  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৪৯ বার পড়া হয়েছে

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:

নওগাঁর মান্দায় জোতবাজার আত্রাই নদীর ওপর সোজা দাঁড়িয়ে আছে একটি সেতু।আর এটি নির্মাণ করতে সময় লেগেছে প্রায় পাঁচ বছর। কিন্তু সংযোগ সড়ক নির্মাণ না করেই কাজ গুটিয়ে নিয়েছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।এ কারণে প্রায় ১৯ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সেতুটি এলাকবাসীর কোনো কাজেই আসছে না।এরমধ্যে খেয়াঘাট মাঝি ও স্থানীয়দের উদ্যোগে সেতু দিয়ে পারাপারের জন্য তৈরি করা হয়েছে বাশেঁর চাটাই।সেতুর সংযোগ সড়ক না থাকায় ঝুঁকি নিয়ে চাটাই বেয়ে পারাপার হচ্ছে মটর সাইকেল,ভ্যান ও সাধারণ মানুষ।চাটায় তৈরির খরচ জোগাতে সুবিধাভোগীদের নিয়মিত পরিশোধ করতে হচ্ছে টোল।সেই সাথে বন্ধ হয়ে গিয়েছে জোতবাজার খেয়া ঘাটের পারাপার।স্থানীয়রা জানান, উপকরণের দাম বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন অজুহাতে সেতুটির নির্মাণ কাজ দফায় দফায় বন্ধ রাখে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।পরবর্তীতে সেতুর নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করা হলেও সংযোগ সড়ক না করেই কাজ গুটিয়ে নেয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি।তাই এলাকাবাসী ও খেয়াঘাটের মাঝি কিছু মাটি কেটে তার উপরে বাশেঁর চাটাই তৈরি করে সেতু দিয়ে পারাপারের ব্যাবস্থা করে দেন।এরপর থেকে বাশেঁর চাটা বেয়ে সেতু দিয়ে চলাচল করছে মানুষ।কবে থেকে সম্পূর্ণ ভাবে চালু হবে সেতু তা নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াসা।তবে সেতুটি পুরোপুরি সম্পূর্ণ করতে কয়েকবার সময় বৃদ্ধি করার পরও অসম্পূর্ণ রয়েছে কাজ।কাজ না করায় কারণে বাড়ানো সময়ও পার হয়ে গেছে। সেতুটি সম্পূর্ণ না করার কারণে চাটাই বেয়ে সেতুতে উঠতে গুনতে হচ্ছে টাকা।এলজিইডি প্রকৌশলী বারবার জাতীয় নির্বাচনের আগে সেতুটি সম্পূর্ণ করে ছেড়ে দেওয়ার কথা বললেও বিভিন্ন অজুহাতে তার কথা রাখতে পারিননি তিনি।টাকার বিনিময়ে সেতুদিয়ে পারাপার হতে পেরে অনেকটা খুশি এলাকাবাসী।উপজেলা এলজিইডি অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পূর্ব মান্দার বাসিন্দাদের পারাপারের সুবিধার্থে আত্রাই নদীর জোতবাজার খেয়াঘাটে ২১৭ মিটার দৈর্ঘ্য ও ৭ দশমিক ৩২ মিটার প্রস্থের একটি সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়। সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়েছিল ২০১৮ সালের ২৩ এপ্রিল।এতে ব্যয় হয়েছে ১৮ কোটি ৮১ লাখ ২৫ হাজার টাকা।উপজেলা প্রকৌশলী শাইদুল রহমান মিঞা বলেন, সেতুর বাকি অংশটুকু সম্পূর্ণ করতে রিটেন্ডার হতে পারে। এলাকবাসী বাশেঁর চাটা দিয়ে সেতু পারাপারের কথা তিনি শুনেছেন।বারবার বাঁশ খুলে দেওয়া হলেও পরবরর্তীতে আবার তারা এসব তৈরি করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓