1. multicare.net@gmail.com : আমাদের পিরোজপুর ২৪ :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১১:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সোমবার দুর্গত এলাকার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল বাংলাদেশের উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করেছে মুন্সীগঞ্জের কৃতি সন্তান নৌ পুলিশের ডিআইজি ইরান পেলেন উন্নয়নে বাংলা অ্যাওয়ার্ড মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগরে এক রাতেই ৯টি কবরের কঙ্কাল চুরির অভিযোগ পানি সমস্যা সমাধানে বিত্তহীনদের পাশে সমাজসেবী তাপস পিরোজপুরে ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে নিম্নাঞ্চল ও চরাঞ্চল প্লাবিত, ৫৬১টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রোববার রাতে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় রেমাল ঘূর্ণিঝড় রেমালের ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে পায়রা ও মোংলা সমুদ্রবন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ফুলপুরে ভিজিএফ কর্মসূচি কার্ড বিতরণ উদ্বোধন প্রাইম ব্যাংক জাতীয় স্কুল ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে কাউখালীর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়

মুসলিম সম্প্রদায়ের শেকড়ে হুমকি দিচ্ছে সন্ত্রাসবাদ: এরদোয়ান

  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০
  • ২৭০ বার পড়া হয়েছে
এরদোয়ান

সন্ত্রাসবাদ এবং বর্ণবাদের মতো ভয়ংকর ফাঁদ থেকে মুসলিম সম্প্রদায়কে রক্ষার জন্য বিশ্বের মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) তিনি বলেন, সারাবিশ্বের মুসলমানদের উচিৎ মুসলিম সম্প্রদায়কে সন্ত্রাসবাদ এবং বর্ণবাদের মতো ভয়াবহতা থেকে রক্ষা করা। এসবের মাধ্যমে মুসলিম ভ্রাতৃত্ববোধের গভীরে ফাটল ধরানোর ষড়যন্ত্র চলছে বলেও সতর্ক করেন তিনি।

তুরস্কের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা’র (ওআইসি) সম্মেলনে ভিডিও লিংকে যুক্ত হয়ে এরদোয়ান বলেন, বর্ণবাদ, জাতীয়তাবাদ, সাম্প্রদায়িকতা এবং সন্ত্রাসবাদের মতো সংকটগুলোকে মুসলিমবিশ্বের গভীরে আঘাত করার জন্য ইস্যু বানানো হয়েছে।

‘বিশ্বব্যাপী গড়ে প্রতিদিন ১ হাজার মুসলমান সন্ত্রাসবাদ এবং সংঘাতের শিকার হচ্ছে।’ এরদোয়ান জোর দিয়ে বলেন, সংকট উপেক্ষা এবং অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের কারণে আমরা মুসলমানরা সন্ত্রাসবাদ, ক্ষুধা, অসমতার মতো নানা ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছি।

প্রতিটি সম্মেলনে রাজনৈতিক যুক্তি-তর্ক নিয়ে আলোচনা, মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যেকার সমঝোতা এবং ভ্রাতৃত্ববোধকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। এ কারণে রাজনৈতিক আলোচনার পাশপাশি ধর্মীয় মূলবোধের চর্চা বাড়ানোর জন্য ওআইসির প্রতি আহ্বান জানান এরদোয়ান।

ভুল বোঝাবুঝি এবং ভুল শিক্ষার কারণে মুসলমানরা সমাজে নানা ধরনের সংকটের মুখোমুখি হচ্ছে বলে তুলে ধরেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট। তিনি জোর দিয়ে বলেন, বাস্তব জীবন এবং ধর্মীয় সর্বজনীনতার মধ্যে শক্তিশালী, দৃঢ়-অবিচল একটি সম্পর্ক গড়ে তোলা জরুরি।

পশ্চিমা কিছু দেশের ইসলামোফোবিক নীতির তীব্র সমালোচনা করেন এরদোয়ান। বলেন, ইসলামোফোবিক পদক্ষেপ ওইসব দেশের রাষ্ট্র প্রধানদের ব্যর্থতা ঢাকার একটি সফল হাতিয়ারে পরিণত হয়েছে। এসব অঞ্চলে ইসলামকে রাষ্ট্র প্রধানরা নিজেদের মতো ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি। সর্বশেষ উদাহরণ হিসেবে ফরাসি ইসলাম, ইউরোপীয় ইসলাম এবং অস্ট্রেলিয়ান ইসলামকে তুলে ধরেন এরদোয়ান।

এ ধরনের পদক্ষেপের মাধ্যমে বিশেষ করে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ইসলাম এবং মুসলমানদের লক্ষ্যবস্তু বানাচ্ছেস বলে অভিযোগ এরদোয়ানের।

এর আগে ২ অক্টোবর ম্যাক্রোঁ বলেছিলেন, ইসলাম সঙ্কটে। এরদোয়ান তার এ বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেন। বলেন, ম্যাক্রোঁর বক্তব্য ইসলামভীতিকে উৎসাহী করবে। ফরাসি প্রেসিডেন্ট নিজের ব্যর্থতা লুকানোর জন্য ইসলামকে টার্গেট করেছেন বলেও সমালোচনা করেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

এরদোয়ান জোর দিয়ে বলেন, ফ্রান্স মুসলিমবিরোধী একটি পদ্ধতি চালুর চেষ্টা করছে। যেখানে শুধু ঘরে ইসলাম চর্চার অনুমিত থাকবে। বাইরে, কর্মস্থলে, সামাজিক জীবনে ইসলামি বিধিবিধান এবং সংস্কৃতি চর্চায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হতে পারে।

বাইরের থেকে পদ্ধতিগত আক্রমণ এবং নিজেদের ভুলের কারণে মুসলমানদের অভ্যন্তরে ফাটলের যে হুমকি তৈরি হয়েছে তা কোনোভাবেই ধর্মীয় মূল্যবোধে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না বলে সতর্ক হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓