1. multicare.net@gmail.com : আমাদের পিরোজপুর ২৪ :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১১:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সোমবার দুর্গত এলাকার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল বাংলাদেশের উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করেছে মুন্সীগঞ্জের কৃতি সন্তান নৌ পুলিশের ডিআইজি ইরান পেলেন উন্নয়নে বাংলা অ্যাওয়ার্ড মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগরে এক রাতেই ৯টি কবরের কঙ্কাল চুরির অভিযোগ পানি সমস্যা সমাধানে বিত্তহীনদের পাশে সমাজসেবী তাপস পিরোজপুরে ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে নিম্নাঞ্চল ও চরাঞ্চল প্লাবিত, ৫৬১টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রোববার রাতে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় রেমাল ঘূর্ণিঝড় রেমালের ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে পায়রা ও মোংলা সমুদ্রবন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ফুলপুরে ভিজিএফ কর্মসূচি কার্ড বিতরণ উদ্বোধন প্রাইম ব্যাংক জাতীয় স্কুল ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে কাউখালীর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়

সিরাজদিখানে লক্ষ টাকার কুড়িয়ে পাওয়া সোনার ব্রেসলেট ফিরিয়ে দিল শিশু সামিম

  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৪৮ বার পড়া হয়েছে

মোঃ ওসমান গনি নিজস্ব প্রতিবেদক :

মুন্সীগঞ্জে সিরাজদিখানে লক্ষ টাকার সোনার ব্রেসলেট পেয়ে ফিরিয়ে দিলেন ১২ বছরের শিশু সামিম।উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের উপজেলা মোড় সংলগ্ন শেখ আলাউদ্দিন কমপ্লেক্সের নিচে শাহী রেস্তোরাঁয় ব্রেসলেটি কুড়িয়ে পায়।জানাযায়,বাবা মিষ্টার দিনমজুর অভাবের সংসারে ৪ ভাই বোনের মধ্যে বড় ১২ বছরের শিশু শামিম।মা-বাবা ভাই বোন নিয়ে সিরাজদিখান বাজার সংলগ্ন কাঠপট্টি মিলনের বাড়িতে ভাড়া থাকেন।লেখাপড়া ছেড়ে বাবাকে সাহায্য করতে ১ মাস যাবত ২ হাজার টাকা মাসিক বেতনে কাজ নেন উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের উপজেলা মোড় সংলগ্ন শেখ আলাউদ্দিন কমপ্লেক্সের নিচে শাহী রেস্তোরাঁয়।প্রতিদিনের মত শিশু সামিম কাজ করতে গিয়ে ২৬ জানুয়ারী সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে টেবিলের নিচে দেখেন সোনা তৈরী ১ ভরির ওজনের একটি হাতের ব্রেসলেট পরে আছে।ব্রেসলেটটি পেয়ে সাথে সাথে শাহী রেস্তোরাঁর মালিক মো:ইসুফ হাওলাদারের কাছে জমা দেন।মো: ইসুফ হাওলাদার ব্রেসলেট এর প্রকৃত মালিক কে পেয়ে যথার্থ প্রমাণ নিয়ে ব্রেসলেট টি ২৭ জানুয়ারী সকাল ১০টার দিকে বুঝিয়ে দেন।শিশু সামিম জানান,আমি সব সময়ের মত টেবিল মুছতে গিয়ে নিচের দিকে দেখি একটি চেইন পরে আছে আমি চেইনটা হাতে নিয়ে সাথে সাথে মালিকের কাছে বুজিয়ে দেই।মালিক চেইনের মালিকের নিকট চেইনটি বুজিয়ে দেন।আমাদের অভাবের সংসার তাই কাজ করে আমার বাবাকে সাহায্য করি।শাহী রেস্তোরাঁর মালিক মো:ইসুফ হাওলাদার জানান,আমি জানতে পারি আমার এক কর্মচারী সোনা তৈরী ১ ভরির ওজনের একটি হাতের ব্রেসলেট পেয়েছে।যাহার মুল্য প্রায় ১ লক্ষ টাকা আমি সাথে সাথে সংরক্ষণ করি এবং প্রকৃত মালিক কে পেয়ে তার নিকট বুঝিয়ে দেই।পাশাপাশি এ ১২ বছরের ছেলের সততা দেখে আমি মুগ্ধ আমি তার ভবিষ্যতে উজ্জ্বল মঙ্গল কামনা করছি।আমি এ ছোট ছেলের সততা দেখে ৫ শত টাকা পুরস্কার দেই।উপজেলার লতব্দী ইউনিয়নের কংশপুরা গ্রামের মোসাম্মদ লিপি বেগম জানান,শাহী রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়ে সোনা তৈরী ১ ভরির ওজনের একটি হাতের ব্রেসলেট হারিয়ে ফেলি।বিভিন্ন যায়গায় অনেক খোজাখুজি করে না পেয়ে শাহী রেস্তোরাঁয় এসে খোঁজ করলে রেস্তোরাঁর মালিক জানান আমরা পেয়েছি।আমি এ ব্রেসলেটের সঠিক প্রমাণ দিয়ে বুজে নেই। ১২ বছরের এ ছেলের সততা দেখে আমি মুগ্ধ। আমি এ ছেলেকে ১ হাজার টাকা পুরস্কার দেই পাশাপাশি তার ভবিষ্যতে উজ্জ্বল মঙ্গল কামনা করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓